বাংলাদেশ, একটা ভুখন্ডের নাম,একটা দেশের নাম সাথে একজনের সত্তার নাম।নাম তার লগন।যে কিনা খেলার জন্য ঢাকায় চলে এসেছিলো সেই ক্লাস 6 এ।এক বছরের বেশি কোন স্কুলেই মন বসেনি তার।তারপর এখন পর্যন্ত চলছে তার সামনে আগানো।তার কথা শুনতে খোশগল্প.কম ছিল তার সাথে।

আসলে আমাদের ফ্যামিলি তে যে যা করতে চায় তাকে সেটা করতে দেয়া হয়

লিখেছেন...admin...জানুয়ারী 12, 2016 , 5:10 অপরাহ্ন

12341411_1238240596189723_8423752896147003275_n

খোশগল্প.কম: কি করা হচ্ছিল??

লগন: তেমন কিছু না।আন্টির সাথে গল্প করছিলাম।

 

খোশগল্প.কম: পড়াশুনা কোথায় করা হয়?
লগন: এডমিশনের জন্য চেষ্টা করছি।

 

খোশগল্প.কম: আচ্ছা এডমিশনের প্রসেস টা কেমন লাগে?
লগন: কোনটাই লাগেনা।

 

খোশগল্প.কম: আগ্রহ নাই?
লগন: আসলে ক্রিকেট কেই প্রফেশন হিসেবে নেয়ার ইচ্ছে আছে তাই সেভাবে আগ্রহ নাই।

 

খোশগল্প.কম: ক্রিকেট নিয়ে এই চিন্তা কবে থেকে?
লগন: যখন থেকে আমি বুঝি আমি মানুষ আমাকে কিছু করতে হবে তখন থেকে।তাও প্রায় ৮-৯ বছর আগের কথা।

খোশগল্প.কম: ফ্যামিলি সাপোর্টের কথায় যদি আসি সেটা কেমন ছিল??
লগন: পুরো ছিল।আমার ভাইয়ার আগ্রহ সব থেকে বেশি।সেই আমাকে প্রথম রংপুর ক্রিকেট একাডেমীর শাকিল ভাইয়ের কাছে নিয়ে যায়।সেই থেকে শুরু।আসলে আমাদের ফ্যামিলি তে যে যা করতে চায় তাকে সেটা করতে দেয়া হয়।

 

খোশগল্প.কম: কি মনে হয় খেলার জন্য পড়াশুনায় ক্ষতি হইছে??
লগন: আমার আসলে কখনই পড়াশুনার পাশাপাশি খেলা ছিল না বরং খেলার পাশাপাশি পড়াশুনা ছিল।বরং বলতে পারেন পড়াশুনার জন্য খেলায় কোন ক্ষতি হইছে কিনা।

 

খোশগল্প.কম: আচ্ছা তাহলে কেমন ক্ষতি হইছে?
লগন: আসলে দুটাই একসাথে কন্টিনিউ করা অনেক কঠিন। আমার যখনি কোন ভাল বা ন্যাশনাল পর্যায়ে লিগ হয় তখনি কোন না কোন পরীক্ষা হয়।এইযে যেমন জেএসসির সময় বিকেএসপি ক্যাম্প,18 ডিভিশনাল ক্যাম্পের সময় এসএসসি,ঢাকা লিগের সময় এইচএসসি।

 

খোশগল্প.কম: হ্যান্ডেল করা হয় কেমন করে দুইটা??

লগন: আসলে অনেক টাফ।প্লেয়ারদের জন্য আলাদা পরীক্ষা নেয়া উচিত।

 

খোশগল্প.কম: এখন কি নিয়ে ব্যস্ত আছেন খেলায়?
লগন: আমি একটা প্রফেশনাল টীমের সাথে আছি।টিম রকমারীতে।এছাড়া ঢাকা লিগ পাশাপাশি রংপুর,গাইবান্ধা,মুন্সিগঞ্জ লিগ খেলেছি।

 

খোশগল্প.কম: এই টিমের খোজ পেলে কোথায় বা কার মাধ্যমে এসেছ??
লগন: আমার একফ্রেন্ড নাম সৌমিক ওর কাছ থেকে।

 

খোশগল্প.কম: সিলেকশন প্রসেস টা কেমন এখানকার?
লগন: এখন পাইপলাইনে খেলার মধ্য দিয়ে টিমে আসতে হয় আমার সময় হিমালয় ভাই নিয়েছিলেন উনি টিম রকমারীর ফাউন্ডার।তিন ম্যাচ প্রাক্টিস খেলে তারপর টিমে আসতে হত।

 

খোশগল্প.কম: খেলায় কোন সেকশন বেশি প্রেফার করা হয়??
লগন: আমি কিপিং করি এবং টপ অর্ডার ব্যাটস্মান।

 

খোশগল্প.কম: ওপেনিং করা হয়?
লগন: না এখানে ৩/৪ এ খেলি তবে করা হইছে ওপেনিং।

 

খোশগল্প.কম: প্রেসারটা কেমন থাকে??
লগন: আসলে ওপেনিং এ তেমন প্রেসার থাকে না এ সময় টা বুঝে খেলার তবে প্রেসার আসে সেটা এর পরের ব্যাটসমান গুলোর জন্য কারন ও সময় খেলা টেনে নিয়ে যেতে হয় আবার কোলাপ্সড করলে স্ট্রাগেল করতে হয়।

 

খোশগল্প.কম: কোন ধরনের বল খেলতে ভালো লাগে?
লগন: স্কোয়ার কাট আর ড্রাইভের বল গুলো খেলতে ভালো লাগে।

 

খোশগল্প.কমঃ লেফট হ্যান্ড না রাইট হ্যান্ড ব্যাটসম্যান?
লগনঃরাইট হ্যান্ড।

 

খোশগল্প.কম: শচীন টেন্ডুলকার ও তো রাইট হ্যান্ড ব্যাটসমানতাকে নিয়ে কিছু বল
লগন: তাকে নিয়ে কিছু বলার পর্যায়ে যাইনি এখনো।

 

খোশগল্প.কম: আইডল মানা হয় কাকে?
লগন: আইডল বলতে কিছু নাই তবে অনেকের খেলা ভালো লাগে।

 

খোশগল্প.কম: যেমন?
লগন: ব্যাটিং এ ভালো লাগে মুশফিক,ক্লার্ক,শচিন।কিপিং এ মুশি,হাদ্দিন।সবমিলিয়ে ভিলিয়ার্স,হাসিম আমলা আর মাসরাফি “বস”।

 

খোশগল্প.কম: আসলেই সে বসক্যাপ্টেন্সি করা হইসে?
লগন: জী ছোট থেকেই।ইতিহাস অনেক লম্বা।রংপুর ক্রিকেট একাডেমীর ক্যাপ্টেন ছিলাম।ইন্দিরা রোড ক্রিকেট একাডেমীর ক্যাপ্টেন,ঢাকা মেট্রো পুলিশ, রংপুর লিগ, স্কুল লিগ, কলেজ লিগে ক্যাপ্টেন আর এখন রকমারী ক্রিকেট টিমে সহকারী ক্যাপ্টেন।

 

খোশগল্প.কম: ক্যাপ্টেন্সিতে কোন জিনিস গুলো বেশি মাথায় রাখতে হয়?
লগন: অনেক কিছু।নিজের এবং অপজিট টিমের উইকনেস জানতে হবে।নিজেকে সৎ হতে হবে।আর্লি সিচুয়েশন বুঝতে হবে,ডিসিশন গুলো বুঝে নিতে হবে,বল চেঞ্জ করতে হবে প্রোপার আর টাফ গেম বের করার এবিলিটি থাকতে হবে।

 

খোশগল্প.কম: জিম্বাবুয়ে সিরিজ নিয়ে কিছু বল
লগন: এই সিরিজে বাংলাদেশ ফেবারিট।আসলে টেস্টের পনেরো বছরে এসে জিম্বাবুয়ে কে নিয়ে মাথা ঘামানোর সময় নাই।আমরা বড় দল গুলোর সাথে তো জিতবই সাথে আরো ভালো করার জন্য তাদের নিয়ে চিন্তা করব আর বাকি দলগুলোর সাথে খেলে রাংকিং এ আসব।কংগ্রাটস বাংলাদেশ টিম কে হোমে সিরিজ জেতার জন্য।আর স্বাগতম সাকিবের রাজকন্যা কে।

 

খোশগল্প.কম: আমাদের দল নিয়ে আশা ভরসার জায়গাটা কেমন?
লগন: আসলে দল নিয়ে ভাবার জন্য নির্বাচক আছে তবে একটাই আসা দল নিয়ে যেনো কোন স্বজনপ্রীতি করা না হয়।

 

খোশগল্প.কম: ফিউচার প্ল্যান কি?
লগন: প্লান হল এইবার লিগে রান করা এবং আরও উপরের র‍্যাংকে খেলা আর অবশ্যি ন্যাশনাল টিমে খেলা।

 

খোশগল্প.কম: আর স্বপ্ন??
লগন: আসলে যা স্বপ্ন তা না বলাই শ্রেয়।

 

খোশগল্প.কম: তোমার পিছের মানুষ গুলো কে নিয়ে কিছু বলবে?
লগন: অবদান অনেকের।আমার ভাইয়া নাম মেঘন,শাকিল ভাই, সোহেল ভাই কোচ।মনির স্যার,ইসলাম স্যার কোচ।আরো আছে জুয়েল স্যার,রতন স্যার উনারা ন্যাশনাল কোচ।আর হিমালয় ভাইয়া।যারা সবসময় আমার পাশে আছে।

 

খোশগল্প.কম: প্রথম ব্যাট টা পাওয়া হয় কোন ক্লাসে?কে কিনে দিছিলো?
লগন: ক্লাস 4 এ।অবশ্যই আছে।ব্যাট টা কিনতে আব্বু হাফ টাকা আর জন্মদিনে পাওয়া টাকা দিয়ে কেনা হইছিল।আর রংপুরের পাপ্পু ভাই উনার ব্যবহার করা এক জোড়া গ্লোভস দিসিলো যেটা প্রথম আমার কোন ভালো গ্লোভস।

 

খোশগল্প.কম: খেলার শুরুটা কার কাছ থেকে??
লগন: রংপুরের শাকিল ভাইয়ের কাছ থেকে।উনার হাতেই নাসির হোসেইন,সাজিদুল ইসলাম,আরিফুর রহমান,সোহরাওয়ার্দী শুভ এই ন্যাশনাল প্লেয়ার রা গড়া।আমার শুরুও উনার কাছে।দোয়া করবেন।

 

খোশগল্প.কম: পুরো নাম টা যেনো কি?
লগন: খন্দকার মোঃ শায়েখ মায়সার।নিকনেম লঘন তবে সবাই লগন ডাকে।নাম টা সুন্দর না?

 

খোশগল্প.কম: অনেক সুন্দরআর এই নামটাই সামনের একটা সিগনেচার নাম হবে ইনশাল্লাহ

Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Pin on Pinterest0

মতামত