• লিখেছেন...admin..., 2:21 অপরাহ্ন

    খোশগল্প.কম: কতদিন হলো এই ব্যবসার সাথে আছেন?

    মোহাম্মাদ হারেস:  প্রায় দশ-বারো বছর ধইরা।

    খোশগল্প.কম: সত্তরের ওপর বয়স আপনার। এই বয়সে কাজ করতে খারাপ লাগে না?

    54 বার পঠিত
  • খোশগল্প.কমঃ লেখালেখির শুরু থেকেই কি ভেবেছিলেন নিজেকে একজন রম্য লেখক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করবেন?

    ইমন চৌধুরীঃ আমি বিষয়টা এভাবে দেখি না। রম্য লেখক, ছোটদের লেখক, বড়দের লেখক এভাবে বিভাজনের পক্ষেও নই। আলপিন দিয়ে যেহেতু শুরু তাই শুরুতে আমাকে রম্য লিখতে হয়েছে।…

    229 বার পঠিত
  • লিখেছেন...admin..., 2:20 অপরাহ্ন

    খোশগল্প.কম: সমাজের পতিততম স্তর ‘ডোম কিংবা ডাকাত’ বংশে জন্মে আসলেই কি ‘কবি’ হতে পেরেছিলেন?

    নিতাইচরণ: যখন প্রথম মাঘী পূর্নিমার পূজায় মহাদেবের দোয়ারকি করেছি, ছড়া কেটেছি, চাকুরে বাবু পোয়েট বলেছেন; ঝুমুর দলে আচমকা সুযোগ পেয়ে গেয়েছি; মদ খেয়েছি, খেউড় করেছি, কাশী থেকেও ফেরত এসেছি…

    61 বার পঠিত
  • ডলফিনের ঝাঁকের সাথে এক সমুদ্র থেকে আরেক সমুদ্রে ঘুরে বেড়ায় জলমানব ইকথিয়ান্ডর। কখনো সমুদ্র তীরের পাথরের উপর বসে শাঁখ বাজায়; সে উভচর; মানুষ হয়েও মাছ, মাছ হয়েও মানুষ। ডাঙ্গায় সে নিঃশ্বাস নেয় মানুষেরই মতো করে, আর নোনা জলে ডুব দেয়ার পর শরীরে জেগে ওঠে মাছের মতো কানকো ।…

    48 বার পঠিত
  • দ্য হাউন্ড অব দি বাস্কারভিলস মূলত উত্তরাধিকার পাবার জন্য প্রকৃতিবিদ স্টেপলটনের নিষ্ঠুর এক ছক। বাস্কারভিল হাউজের উত্তরাধিকার দু’জন; চার্লস এবং হেনরী। স্টেপলটন বিশালাকার হাউন্ডকে লেলিয়ে দিয়ে চার্লসকে ইতিমধ্যে হত্যা করেছেন। হেনরীও ছিল তার প্রায় নাগালে। কিন্তু শার্লক হোমসের ছদ্মবেশ এবং ক্ষিপ্র গোয়েন্দা কৌশলে স্টেপলটন ধরা পড়ে যান।

     

    খোশগল্প.কম: প্রকৃতিবিদ স্টেপলটন দোষী সাব্যাস্ত হলেও, তার মৃত্যুদশা রচিত হয় নি, ধারণা থেকে নিশ্চিত করা হলো তিনি জলায় ডুবে মারা গেছেন।

    47 বার পঠিত
  • খোশগল্প.কম: কনস্তান্তিন দিমিত্রিচ লেভিনের পরিচয় কি আসলে? মস্কো শহরের অধিবাসী না গ্রামের?

    লেভিন: লেভিন গ্রামে থাকে। কৃষি, শারীরিক শ্রমকে সে জীবিকার প্রধান জ্ঞান করে। পূজিবাদী কারেনিন, ভ্রনস্কির তুলনায় আমার দৃষ্টিভঙ্গি সামন্ততান্ত্রিক, আদর্শ জীবন যাপনে বিশ্বাসী। বিশ্ববিদ্যালয় জীবন কেটেছে মস্কোতে, তাই শহরকেও আমার ভাল লাগে। বিয়ের আগে পাত্রী খুঁজতেও মস্কোতেই আসি।…

    46 বার পঠিত
  • আন্না একজন অসুখী নারী, যার স্বামী কারেনিন মন্ত্রীদপ্তরের কর্মকর্তা,  সন্তান সেরিওজা। মস্কো শহরের এক অনুষ্ঠানে আন্নার সাথে পরিচয় হয় তরুণ সামরিক কর্মকর্তা ভ্রনস্কির সাথে। ভ্রনস্কির ভালোবাসার তীব্রতায় আন্না স্বামীকে ছেড়ে আসে প্রকাশ্যে। একসাথে থাকার বহুদিন পরও সমাজ তাকে স্বাভাবিকভাবে না নেওয়া এবং মা ও প্রেমিকা এই দুই সত্তার দ্বন্দ্ব আত্মসম্ভ্রমী আন্নাকে আত্মহত্যায় পরিণতি দেয়।  উপন্যাসটিতে আরো একটি দম্পতি আছে; কিটি ও লেভিন। আজ নেবো আন্না কারেনিনার সাক্ষাৎকার……

    52 বার পঠিত
  • খোশগল্প.কম: কমলাকে বিয়ের আগে আপনার জীবন কেমন ছিল?

    রমেশ: উপন্যাসে যেমন দেখেছ। ঐ সময়ের আর দশটা তরুণের মত। হেমনলিনীর সাথে সম্পর্ক গাঢ় হচ্ছে, অক্ষয়বাবুর সাথে কাঁচা বয়সের তর্ক জমে ওঠা, হেমনলিনী কিংবা তার বাবার কাছে আরেকটু শ্রদ্ধা-স্নেহাষ্পদ হয়ে ওঠা এইতো…

     

    খোশগল্প.কম: আপনি  কমলাকে আগে কেন জানালেন না?

    রমেশ: বলে কি হত? তাকে বললে অনাবশ্যক চিন্তায় তাঁকে ফেলে দিতাম। তার মামী তাকে বিয়ে দিয়ে বেঁচে যেতে চেয়েছেন। …

    67 বার পঠিত
  • খোশগল্প.কম: অল্প বয়সে বিধবা হয়েছিলেন, বৈধব্যকে কি ধারণ করতে পেরেছিলেন?

    বড়দিদি: কতকটা পেরেছিলাম। সুরেন্দ্রনাথকে আমি ভাইয়ের মতই দেখতাম, স্নেহ নিম্নগামী তাই প্রকাশে বাৎসলতা ছিল।…

    65 বার পঠিত
  • পাত্র অনুপমের মামা  বিয়ের দিন কনে পক্ষের দেওয়া সমস্ত অলংকার পরীক্ষা করে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে কনে কল্যাণী’র পিতা মেয়ে’র বিয়ে ভেঙে দেন।

     

    বহুবছর পর অনুপম ট্রেনে যখন সিট না পেয়ে  হন্যে তখন অন্ধকার থেকে কল্যাণী জানায় তাঁর কামরায় ‘জায়গা আছে’। কল্যাণী চলে যাবার পর অনুপম বুঝতে পারে এই সেই কল্যাণী। কল্যাণী মাতৃভূমির সেবায় নিজেকে ব্রতী করে; আর অনুপম? -“কেবল সেই একরাত্রির অজানা কণ্ঠের ভরসা — জায়গা আছে।

    নিশ্চয়ই আছে। নইলে দাঁড়াব কোথায়? ” …

    125 বার পঠিত